হিন্দুধর্ম

হিন্দুধর্মে হিল্লা বিয়ে

অনলাইনে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে শুদ্রদের চিৎকার করতে শোনা যায় ইসলামে নাকি হিল্লা বিবাহ রয়েছে, এই সেই! যদিও শুদ্র হওয়ার কারণে তাদের লেখাপড়া করার অধিকার নেই, তাই কান থেকেও শোনে না, ব্রেইন থাকতেও বোঝে না, চোখ থাকতেও দেখে না। মুসলিমদের জানা আছে এই তথাকথিত হিল্লা বা হালালা ইসলামে হারাম।[1]তালাকের শারঈ পদ্ধতি ও হিল্লা বিয়ের বিধান, মাসিক আত তাহরীক, জানুয়ারী ২০১৭[2]https://response-to-anti-islam.com/show/হিল্লা-বিয়ে-কি-ইসলামী-শরিয়ত-সম্মত–/112[3]Halala Vs Niyog | क्या इस्लाम में हलाला जाएज़ है ? | Islam Men Halala Ka Hukam | Rig Veda Aur Niyog মজার ব্যাপার হলো হিন্দুধর্মেই এই হিল্লা বিয়ে করতে বলা হয়েছে।

হিল্লা / হালালা বিবাহ কী? টেকনিক্যালি এর মানে হলো কোনো অবৈধ বিবাহকে অপকৌশল খাটিয়ে অন্য আরেকটি বিবাহের মাধ্যমে হালাল করা। হিন্দুধর্মে এমন উদাহরণ হচ্ছে অবিবাহিত বড় ভাই কিংবা বড় বোনের আগে বিবাহ করলে সেই বিবাহ অবৈধ। এবং সেই বিবাহ বৈধ করার জন্য কিছু হাস্যকর নিয়মকানুন রয়েছে।

এরকম কোনো বিয়ে হলে সেক্ষেত্রে বড় ভাই, ছোট ভাই, ছোট ভাইয়ের বউ সবাই পাপী হয়। সবার ব্রত করতে হয়।[4]পরাশরসংহিতা, ৪/২৫-২৬ মনুসংহিতা মতে তারা নরকে যাবে।[5]মনুসংহিতা ৩/১৭১-১৭২

মহাভারত শান্তিপর্বে হিন্দুধর্মগ্রন্থ লেখকেরা লিখেছেন,[6]মহাভারত, শান্তিপর্ব, অধ্যায় ১৬৫, শ্লোক ৬৭-৭০, অনুবাদঃ কালীপ্রসন্ন সিংহ, পৃ ১৮৩

অথবা, https://www.mahabharataonline.com/translation/mahabharata_12a164.php

হিন্দুধর্মে হিল্লা বিয়ে

কনিষ্ঠ ভ্রাতা জ্যেষ্ঠ ভ্রাতার অনূঢ়াবস্থায় স্বয়ং বিবাহ করিলে তাহারে, তাহার স্ত্রীরে এবং তাহার জ্যেষ্ঠকে পতিত হইতে হয়। ঐরূপ স্থলে উহাদের তিন জনকেই নষ্টাগ্নি ব্রাহ্মণের ন্যায় প্রায়শ্চিত্ত বিধান ও এক মাস চান্দ্রায় ব্রত বা কৃচ্ছ ব্রতানুষ্ঠান করিতে হইবে । কনিষ্ঠ ভ্রাতা জ্যেষ্ঠকে ইহা আপনার ভার্য্যা গ্রহণ করুন এই বলিয়া আপনার স্ত্রী প্রদান করিয়া পরিশেষে জ্যেষ্ঠের অনুমতিক্রমে সেই ভার্য্যারে পুনরায় গ্রহণ করিবে।

বসিষ্ঠ ধর্মসূত্রে লেখা আছে,[7]বসিষ্ঠসংহিতা, অধ্যায় ২০, শ্লোক ৭-১০, ঊনবিংশতি সংহিতা – পৃ ৫২৪, অনুবাদঃ তর্কানন পঞ্চরত্ন, লিংক

হিন্দুধর্মে হিল্লা বিয়ে হিন্দুধর্মে হিল্লা বিয়ে হিন্দুধর্মে হিল্লা বিয়ে

অগ্রে দিধিষুপতি দ্বাদশ দিনসাধ্য ব্রত করিযা অন্য বিবাহ করিবে এবং পোষণ করিতে অনুমতি লইবার জন্য ঐ পত্নীকে জ্যেষ্ঠার স্বামীর নিকট পাঠাইবে। আর দিধিষুপতি, কৃচ্ছ ও অতি-কৃচ্ছ্র ব্রত করিয়া অন্য বিবাহ করিবে* প্রায়শ্চিত্তা-চরণের নিত্যতা আমরা বলিয়া থাকি।

* জ্যেষ্ঠা ভগিনী বর্ত্তমান থাকিতে বিবাহিতা কনিষ্ঠা ভগিনীর নাম অগ্রেদিধিষু, ঐ জ্যেষ্ঠের নাম দিধিষু ।

ইংরেজি অনুবাদে সম্পূর্ণভাবে লেখা রয়েছে,[8]https://www.sacred-texts.com/hin/sbe14/sbe1423.htm#fr_586

হিন্দুধর্মে হিল্লা বিয়ে

7. He whose younger brother married first shall perform a Krikkhra penance during twelve days, marry and take to himself even that (woman whom his brother wedded). 7

8. Now he who has taken a wife before his elder brother shall perform a Krikkhra penance and an Atikrikkhra penance, give (his wife) to that (elder brother), marry again, and take (back) the same (woman whom he wedded first).

9. The husband of a younger sister married before her elder sister shall perform a Krikkhra penance during twelve days, marry and take to him that (elder sister).

10. The husband of an elder sister married after the younger one shall perform a Krikkhra penance and an Atikrikkhra penance, give (his wife) to that (husband of the younger sister and marry again).

Footnotes:

103:7-8. Vishnu LIV, 16. According to Krishnapandita both brothers shall perform penances. The elder brother shall marry after his penance is finished. The younger one shall offer his wife to the elder, in order to atone for the slur put upon the elder. The latter shall accept her for form’s sake and return her to the younger brother, who must once more wed her. Regarding the Atikrikkhra penance, see below, XXIV, 2.

103:10 Vishnu LIV, 16. Krishnapandita thinks that he should marry another wife, but adds that others say that, after offering his wife to the husband of the younger sister and receiving his permission he should wed her once more.

এখানে আমরা দেখতে পাচ্ছি,

  • বড় ভাইয়ের আগে যদি ছোট ভাই বিয়ে করে ফেলে, তবে ছোট ভাই তার বউকে বড় ভাইকে দিয়ে দিবে। তখন সেই মেয়ে বড় ভাইয়ের বউ হয়ে যাবে। তার পরবর্তীতে বড় ভাই যদি চায়………যদি অনুমতি দেয় তবে সে সেই মেয়েকে আবার ছোট ভাইকে দিবে আবার বিয়ে করার জন্য।

মেয়েদের ক্ষেত্রে এইটা আবার আরও ইন্টারেস্টিং এবং একাধিক ভাষ্য-মত রয়েছে। কোনো মেয়ে যদি তার বড় বোনের আগেই বিয়ে করে ফেলে সেক্ষেত্রে যা হয়ঃ

  1. সেক্ষেত্রে ছোট বোনের স্বামী তার স্ত্রীকে ছেড়ে অন্য বিয়ে করবে।
  2. বড় বোনের যখন বিয়ে হবে, তখন বড় বোনের স্বামী এই বড় বোনকে ছেড়ে অন্য কোনো মেয়েকে বিবাহ করে নিবে। তবে ভাষ্যকারের অন্য মতে সে বড় বোনকে ছোট বোনের স্বামীকে দিয়ে দেবে। তারপর সেই ছোট বোনের স্বামী যদি সুযোগ দেয়, তবে সে আবার বড় বোনকে বিয়ে করতে পারবে।
  3. আর সেই আগের ছোট বোনের স্বামী সেই ছোট বোনকে পাঠাবে সেই বড় বোনের স্বামীর কাছে, আবার বিবাহের অনুমতি পাওয়ার আশায়।
আচ্ছা এই বিষয়ে ইসলাম কী বলে? এক্ষেত্রে ইসলামে কোনো নিষেধ নেই। বড় ভাইয়ের আগে ছোট ভাই বিয়ে করতে পারবে।

    Footnotes

    Footnotes
    1তালাকের শারঈ পদ্ধতি ও হিল্লা বিয়ের বিধান, মাসিক আত তাহরীক, জানুয়ারী ২০১৭
    2https://response-to-anti-islam.com/show/হিল্লা-বিয়ে-কি-ইসলামী-শরিয়ত-সম্মত–/112
    3Halala Vs Niyog | क्या इस्लाम में हलाला जाएज़ है ? | Islam Men Halala Ka Hukam | Rig Veda Aur Niyog
    4পরাশরসংহিতা, ৪/২৫-২৬
    5মনুসংহিতা ৩/১৭১-১৭২
    6মহাভারত, শান্তিপর্ব, অধ্যায় ১৬৫, শ্লোক ৬৭-৭০, অনুবাদঃ কালীপ্রসন্ন সিংহ, পৃ ১৮৩

    অথবা, https://www.mahabharataonline.com/translation/mahabharata_12a164.php

    7বসিষ্ঠসংহিতা, অধ্যায় ২০, শ্লোক ৭-১০, ঊনবিংশতি সংহিতা – পৃ ৫২৪, অনুবাদঃ তর্কানন পঞ্চরত্ন, লিংক
    8https://www.sacred-texts.com/hin/sbe14/sbe1423.htm#fr_586

    ইন্দো আর্য

    [ছদ্মনামে লিখি] Join: t.me/HinduDhormo
    5 1 vote
    Article Rating
    Subscribe
    Notify of
    guest
    0 Comments
    Inline Feedbacks
    View all comments
    Back to top button