নারীবাদ

সামরা বিনতে নাহিক (রাঃ) কি কোনো বাজারের প্রশাসক ছিলেন?

বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ফেমিনিস্ট ও মডারেট স্কলারদের দ্বারা ইসলামের একটি হারাম জিনিসকে হালাল করার জন্য তৎপর দেখা যাচ্ছে। সেটি হলো নারী নেতৃত্ব[1]প্রসঙ্গ যখন ‘ইসলাম বনাম নারী নেতৃত্ব’ https://www.frommuslims.com/?p=2441। দ্বীন ইসলামে কোনো সাবালক পুরুষের উপর নারীর কর্তৃত্ব নেই[2]https://ahlehaqmedia.com/নারী-নেতৃত্বের-হুকুম-কি/। কোনো রাষ্ট্রের শাসক হওয়া নারীদের জন্য হারাম। সলফে সালেহীন – সাহাবায়ে কেরাম যা যথাযথভাবে মেনে এসেছেন। পশ্চিমা স্বঘোষিত স্কলারদের সাহায্য নিয়ে হিজাবী ফেমিনিস্টরা ও সেক্যুলার নিউজমিডিয়া ইসলামী দলিলের বিভিন্ন গোঁজামিল দিয়ে নিজেদের খায়েশ হালাল করতে চাইছে। তার মধ্যে একটি জনপ্রিয় দলিল হলো মহিলা সামরা বিনতে নাহিক (রাঃ) এর ঘটনা। তাদের করা একটি পোস্টের অংশবিশেষ হলো এটিঃ


“সামরা বিনতে নাহিক ” হজরত মোহাম্মদ(সা.)-এর সময়কার “মহিলা সাহাবি” ছিলেন। একই সাথে হজরত মোহাম্মদ (স.) তাকে বাজারে দেখভাল করার জন্য শাসক হিসাবে নিযুক্ত করেন। তিনি মক্কার বাজারের পরিদর্শকও ছিলেন।“আবু বালজ ইয়াহিয়া বর্ণনা করেছেন:-আমি সামরা বিনতে নাহিককে দেখেছি এবং তিনি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম)-এর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। তিনি বাজারের “শাসক(তত্ত্বাবধায়ক)” ছিলেন, তার নিজের গায়ে একটি মোটা কাঁচুলি এবং ওড়না ছিল। তার হাতে একটি চাবুক ছিল যা তিনি মানুষকে “শাসন করতেন” এবং তিনি ভাল কাজের আদেশ দিতেন এবং খারাপ কাজে নিষেধ করতেন [আল-ইসতি’আব ফি মা’রিফাত আল-আশহাব 4/1863]”[হাদিসে তার জন্ম ও মৃত্যু বংশপরিচয় বৃত্তান্ত পাইনি,তবে ঐতিহাসিক গ্রন্থ তার জীবন বিবরনী পাওয়া গেলেও যেতে পারে][তথ্যসূত্রঃ-আল-মুজাম আল-কাবির 785, মান:- হাসান] [আল-ইসতি’আব ফি মা’রিফাত আল-আশহাব 4/1863] [মানঃ-আল আলবানীর মতে জায়িদ (খুব ভাল)]


যাচাই-বাছাই

আল ইসতিআব ফি মারিফাত আল আশহাব কিতাবে আনা রেফারেন্সটি দলিলযোগ্য নয়। ইবনু আব্দুল বার (রহঃ) এই ঘটনা কোনো সনদ ছাড়াই এনেছেন কিতাবেঃ[3]আল ইসতিআব ফি মারিফাত আল আশহাব ৪/১৮৬৩ https://shamela.ws/book/12288/1847

[(٣٣٨٦) سمراء بنت نهيك الأسدية.] أدركت رسول الله صلى الله عليه وسلم [وعمرت [٣]] ، وكانت تمر في الأسواق، وتأمر بالمعروف، وتنهى عن المنكر، وتضرب الناس على ذلك بسوط كان معها. روى عنها أبو بلج جارية بن بلج

সনদবিহীন দলিল আমাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। তবে এই বর্ণনা সনদসহ এনেছেন ইমাম তাবারানি (রহঃ)–[4]মুজামুল কবির আত তাবারানি হাঃ ৭৮৫, (২৪/৩১১) https://shamela.ws/book/1733/25657

حدثنا عبد الله بن أحمد بن حنبل، حدثني أبي، ثنا محمد بن يزيد الواسطي، عن أبي بلج يحيى بن أبي سليم، قال: رأيت سمراء بنت نهيك، وكانت قد أدركت النبي صلى الله عليه وسلم: «عليها درع غليظ، وخمار غليظ، بيدها سوط تؤدب الناس، وتأمر بالمعروف، وتنهى عن المنكر»

আবদুল্লাহ ইবনে আহমাদ বিন হাম্বল আমাদের বলেন, আমার বাবা আমাকে বলেছিলেন, মুহাম্মদ ইবনে ইয়াজিদ আল-ওয়াসিতি আমাকে আবু বালাজ ইয়াহিয়া বিন আবি সালিম সম্পর্কে বলেছিলেন , যিনি বলেছিলেন: সামরা বিনতে নাহিকের সাথে রাসূলুল্লাহর (সাঃ) সাক্ষাতলাভ হয়েছিলো। তার সাথে ছিলো মোটা ঢাল, এবং মোটা ঘোমটা ছিলো। তিনি বাজারের মাঝে দিয়ে যাওয়ার সময় ভালো কাজের আদেশ দিতেন এবং মন্দ কাজের নিষেধ করতেন তার সাথে থাকা চাবুক দ্বারা।

আমরা দেখতে পাচ্ছি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্টকৃত অনুবাদের সাথে আরবির অমিল রয়েছে প্রচুর। যাহোক, আবু নাঈম আল-আসবানী (রহ) এর উল্লেখিত ইবারতঃ[5]কিতাব মারেফাত আল সাহাবাত লি আবি নাইম ৬/৩৩৬৯ https://shamela.ws/book/10490/11307

حَدَّثَنَا أَبُو بَكْرِ بْنُ مَالِكٍ، وَسُلَيْمَانُ بْنُ أَحْمَدَ، قَالَا: ثنا عَبْدُ اللهِ بْنُ أَحْمَدَ بْنِ حَنْبَلٍ، حَدَّثَنِي أَبِي، ح وَحَدَّثَنَا أَحْمَدُ بْنُ جَعْفَرِ بْنِ سَلْمٍ، ثنا مُحَمَّدُ بْنُ يُوسُفَ التُّرْكِيُّ، ثنا مُحَمَّدُ بْنُ حَرْبٍ، قَالَا: ثنا مُحَمَّدُ بْنُ يَزِيدَ الْوَاسِطِيُّ، عَنْ أَبِي بَلْجٍ يَحْيَى بْنِ أَبِي سُلَيْمٍ، قَالَ: «رَأَيْتُ سَمْرَاءَ بِنْتَ نَهِيكٍ، وَكَانَتْ قَدْ أَدْرَكَتِ النَّبِيَّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ عَلَيْهَا دِرْعٌ غَلِيظٌ، وَخِمَارٌ غَلِيظٌ، بِيَدِهَا سَوْطٌ تُؤَدِّبُ النَّاسَ، وَتَأْمُرُ بِالْمَعْرُوفِ، وَتَنْهَى عَنِ الْمُنْكَرِ

আহমদ বিন হাম্বল এর উল্লেখিত ইবারতঃ[6]কিতাবুল জামি লি উলুম আল ইমাম আহমাদ আল ফিক্হ, ১৩/২০৪ https://shamela.ws/book/20878/4859

وقال: أخبرني منصور بن الوليد قال: حدثنا جعفر قال: حدثنا أبو عبد اللَّه قال: حدثنا محمد بن يزيد عن أبي بلج قال: رأيت سمراء بنت نُهيك -وكانت قد أدركت النبي -صلى اللَّه عليه وسلم- بيدها سوط تؤدب الناس، تأمر بالمعروف وتنهى عن المنكر.

(এছাড়া আরো ২/১টি ভিন্ন ইবারত পাওয়া যায় কিন্তু সনদবিহীন হওয়াতে উল্লেখ করা হলো না।)

কোনো একক মুহাদ্দিসের মতের উপর ভিত্তি করে তাহক্বীকের সিদ্ধান্ত হয় না। এই হাদিসটিকে আলবানী রহিমাহুল্লাহ জায়িদ বলেছেন, কিন্তু তাঁর কথা কী কারণে পরিত্যজ্য আসুন দেখে নিই।

মুরসাল কিংবা মু’আল্লাক বর্ণনা

উক্ত হাদিসের রাবী ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজের সাথে সামরা বিনতে নুহাইকের দেখা হয় নি। অর্থাৎ এটি মু’আল্লাক হাদিস[7]কিতাবুল ইখতিলাতি বাইনাল রিজালি ওয়াল নিসাই পৃ. ১৮২, এবং মেজরিটি স্কলার মু’আল্লাক হাদিসকে যয়িফ হিসেবে গণ্য করেন। কিন্তু বুখারি ও মুসলিমের হিসাব আলাদা।[8]মু‘আল্লাক হাদিস, হাদিস শাস্ত্রের ভাষা পরিচিতি, ইসলামহাউজ, https://www.hadithbd.com/books/detail/?book=41&section=682 মুরসাল হাদিস হলে তাও গ্রহণীয় হচ্ছে না।[9]ইমাম নববির ব্যাখ্যা সম্বলিত সহিহ মুসলিম: (১/১৩২).

রাবী ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজ

ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজ সম্পর্কে মুহাদ্দিসদের মিশ্র মন্তব্য পাওয়া যায়, যদিও বেশির ভাগ তাকে বিশ্বস্ত বলেছেন।[10]ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজ সম্পর্কে আলেমগণের মন্তব্যগুলো দেখে আসতে … See Full Note আমরাও এখানে তাঁকে বিশ্বস্ত বিবেচনা করছি।

কখন সনদ অবিচ্ছিন্ন হচ্ছে?

এখানে আরো একটি সম্ভবনা রয়েছে। অনেকের মতে যারা যারা এই হাদিসটির রাবীদের সবাইকে বিশ্বস্ত বলেছেন তারা একটা জায়গাতে ভুল বুঝার কারনে এই কাজটি করেছেন। এখানে দুটো আবু বালাজ রয়েছে, একটা হল ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজ ও আরেকজন হল জারিয়া আবু বালাজ আল সাগির আল ওয়াস্তা। তারা আবু বালাজ আল সাগির আল ওয়াস্তা নামক রাবীকে ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজ ভেবে ভুলটি করেছেন।

তাহলে এই হাদিসের সনদে যা মনে হচ্ছে এখানে আবু বালাজ আল সাগির আল ওয়াস্তা এর সাথে সামরা বিনতে নুহাইক এর দেখা হয়েছে। সেই গ্যাপে যদি আমরা এই রাবীকে চিন্তা করি তাহলে হাদিসটি মু’আল্লাক হয় না। কিন্তু তারপরেও হাদিসটি যঈফ সাব্যস্ত হচ্ছে।

কারন এই রাবী ছিলেন একজন মাজহুল অর্থাৎ অপরিচিত রাবী।[11]আবু বালাজ আল সাগির আল ওয়াস্তার পরিচিতিঃ http://hadithtransmitters.hawramani.com/?p=125779#2eaaf9 তিনি যে অজ্ঞাত রাবী তার প্রমানঃ কিতাব ইজহারুল হাক্কি ওয়াল সাওয়াব ফি হুকমিল হিজাব,পৃ. ৭০৩ … See Full Note আর সকল আলিম একমত যে অজ্ঞাত রাবী থাকলে তা যয়িফ হাদিস হিসেবে গণ্য হবে।

আমরা দেখতে পাচ্ছি যে কোনোভাবেই এই বর্ণনা দলিলযোগ্য হচ্ছে না। হয় সনদবিচ্ছিন্ন কিংবা মাজহুল রাবী যুক্ত, উভয়ভাবেই সনদ যঈফ।

আলেমগণের সাধারণ মন্তব্য

এটি হিজাবী ফেমিনিস্টদের জনপ্রিয় হাদিসগুলোর মধ্যে একটি, যার মাধ্যমে তারা নারী নেতৃত্ব হালাল সাব্যস্ত করতে চায়। কিন্তু উক্ত হাদিসটি সম্পর্কে স্কলারগণ মতামত দেখে নেওয়া যাক।

আমাল আল খামিসা (রহ) বলেছেন,

এ থেকে প্রমাণিত হয় সামরা বিনতে নুহাইক একজন ক্রীতদাসী ছিলো। কারণ বাজারে চলাফেরা করা দাসী-কন্যাদের অভ্যাস ছিল, স্বাধীন মহিলাদের নয়… কারণ সে জিলবাব ছাড়া বের হয়েছিলো…”[12]كشف الغمة عن أدلة الحجاب في الكتاب والسنة page 276 https://shamela.ws/book/524/276

সাঈদ বিন ওয়াহফ আল-কাহতানি (রহ) কোট করেছেন, ফাদল এলাহী (রহঃ/হাফিঃ) বলেছেন,

وأيضا يرد عليهم بما قاله فضل إلهي: «لم يرد فيه أن النبي – صلى الله عليه وسلم – أو أحد الخلفاء الراشدين – رضي الله عنهم – ولاها على حسبة السوق غاية ما في الأمر أنها كانت تقوم بالاحتساب في السوق، وقيام أحد بذلك في السوق، لا يدل على تعيينه واليا على حسبة السوق»

“আর এতে (হাদিসটিতে) এমন কিছুই বলা নেই যে, মহানবী (সাঃ) কিংবা কোনো সাহাবী তাকে বাজারের পরিচালনায় নিযুক্ত করেছেন।”[13]كتاب الاختلاط بين الرجال والنساء, page 182 https://shamela.ws/book/96456/181#p1[14]في كتابه مسؤولية النساء في الأمر بالمعروف والنهي عن المنكر، ص ١٣٦.

এই কারনেই আল-কাত্তানি (রহ) বলেছেন, “সামরা বিনতে নুহাইকের বিষয়টি মহিলাদের সাথে সম্পর্কিত একটি ব্যক্তিগত বিষয়ে ছিল।”[15]আত-তারতিব আল-ইদারিয়া ১/২৮৬

শেহাতা সাকার (রহ) বলেছেন,

“সম্ভবত তিনি তিনি তার কিছু প্রয়োজনের জন্য বাইরে যাচ্ছিলেন, এবং তিনি মন্দ কাজগুলি দেখেছিলেন এবং তাদের নিন্দা করেছিলেন…জ্ঞানী ব্যক্তিরা নারীকে প্রয়োজনে বা প্রয়োজনে বাইরে যেতে নিষেধ করেন না, যদিও সে বারবার বের হয়।…এখান থেকে প্রমাণিত হয় না তাকে বাজারে নিযুক্ত করা হয়েছিলো…হতে পারে এটি অতিবয়ষ্ক ও নাবালিকাদের জন্য……”[16]كتاب الاختلاط بين الرجال والنساء 2/636 https://shamela.ws/book/26006/633

আলবানী (রহ) একে জায়িদ বলেছেন ঠিকই, কিন্তু তিনি এই হাদিসের ব্যাখ্যায় বর্তমানে নারীবাদি মডরেট মুসলিমদের মত কিছুই বলেন নি, বরং তিনি বলেছিলেন,

فأقول: هذه وقائع صحيحة تدل دلالة قاطعة على ما كان عليه نساء السلف من الكمال والسماحة والتربية الصحيحة حتى استطعن أن يقمن بما يجب عليهن من التعاون على الخير ولو لم يكن ذلك في الأصل واجبا عليهن فكيف يكون حالهن إذا فرض الواقع ذلك عليهن مثل الدفاع عن النفس كما فعلت أم سليم رضي الله عن ها حين اتخذت يوم حنين خنجرا ونحوه ما فعلته أسماء بنت أبي بكر رضي الله عن هما

“এগুলি এমন প্রামাণিক তথ্য যা নিশ্চিতভাবে নির্দেশ করে যে পূর্বসূরিদের নারীরা পরিপূর্ণতা, সহনশীলতা এবং সঠিক শিক্ষার ক্ষেত্রে কিসের উপর ছিল, যতক্ষণ না তারা ভাল কাজে সহযোগিতার ক্ষেত্রে তাদের যা করা প্রয়োজন তা পালন করতে সক্ষম হয়েছিল। এবং যদি এটি তাদের জন্য মূলত বাধ্যতামূলক না হয়, তবে বাস্তবতা তাদের উপর চাপিয়ে দিলে তাদের অবস্থা কেমন হবে, যেমন আত্মরক্ষার বেলায়। হুনাইনের দিনে উম্মে সুলায়ম (রা) যেমনটি করেছিলেন, যখন তিনি হুনাইনের দিনে একটি খঞ্জর নিয়েছিলেন এবং অনুরূপ জিনিস নিয়ে আসমা বিনতে আবি বকর (রা) যা করেছিলেন।”[17]كتاب الرد المفحم page 155 https://shamela.ws/book/314/212

এই থেকে বুঝা যায়, আলবানী (রহ) এই হাদিসে গভর্নরশিপ/নেতৃত্ব/শাসকত্ব সম্পর্কিত কোন কিছু দেখেন নি, না হয় তিনি এমন কোন ব্যাখ্যা করতেন না বরং নেতৃত্ব নিয়ে কোন ব্যাখ্যা করতেন।

পরিশেষে আমরা এই সিদ্ধান্তে উপনিত হলাম,

  • সনদের রাবীরা বিশ্বস্ত থাকলেও এতে বিচ্ছিন্নতা রয়েছে, সে কারণে যঈফ।
  • কিংবা মাজহুল রাবী বিচ্ছিন্নতা পূরণ করেছে, এবং মাজহুল হওয়ার কারণে যঈফ।
  • আর এই হাদিস দিয়ে নারী নেতৃত্বজাতীয় কিছুই বোঝাচ্ছে না। তাও প্রমাণিত হচ্ছে না যে তাকে বাজারের প্রশাসক হিসাবে নিযুক্ত করা হয়েছিলো।
  • একসংখ্যক আলেমগণের মতে সে ক্রীতাদাসী ছিলো, তাই হিজাবের ক্ষেত্রে তার ছাড় আছে অল্প। এ প্রসঙ্গে বিস্তারিত পড়ুন এখানেঃ

    Footnotes

    Footnotes
    1প্রসঙ্গ যখন ‘ইসলাম বনাম নারী নেতৃত্ব’ https://www.frommuslims.com/?p=2441
    2https://ahlehaqmedia.com/নারী-নেতৃত্বের-হুকুম-কি/
    3আল ইসতিআব ফি মারিফাত আল আশহাব ৪/১৮৬৩ https://shamela.ws/book/12288/1847
    4মুজামুল কবির আত তাবারানি হাঃ ৭৮৫, (২৪/৩১১) https://shamela.ws/book/1733/25657
    5কিতাব মারেফাত আল সাহাবাত লি আবি নাইম ৬/৩৩৬৯ https://shamela.ws/book/10490/11307
    6কিতাবুল জামি লি উলুম আল ইমাম আহমাদ আল ফিক্হ, ১৩/২০৪ https://shamela.ws/book/20878/4859
    7কিতাবুল ইখতিলাতি বাইনাল রিজালি ওয়াল নিসাই পৃ. ১৮২
    8মু‘আল্লাক হাদিস, হাদিস শাস্ত্রের ভাষা পরিচিতি, ইসলামহাউজ, https://www.hadithbd.com/books/detail/?book=41&section=682
    9ইমাম নববির ব্যাখ্যা সম্বলিত সহিহ মুসলিম: (১/১৩২).
    10ইয়াহইয়া বিন আবি সালিম আবু বালাজ সম্পর্কে আলেমগণের মন্তব্যগুলো দেখে আসতে পারেনঃ
    11আবু বালাজ আল সাগির আল ওয়াস্তার পরিচিতিঃ http://hadithtransmitters.hawramani.com/?p=125779#2eaaf9

    তিনি যে অজ্ঞাত রাবী তার প্রমানঃ

    কিতাব ইজহারুল হাক্কি ওয়াল সাওয়াব ফি হুকমিল হিজাব,পৃ. ৭০৩ https://shamela.ws/book/96548/696 এবং কিতাবুল ইখতিলাতি বাইনাল রিজালি ওয়াল নিসাই পৃ. ১৮২ https://shamela.ws/book/96456/181#p1

    12كشف الغمة عن أدلة الحجاب في الكتاب والسنة page 276 https://shamela.ws/book/524/276
    13كتاب الاختلاط بين الرجال والنساء, page 182 https://shamela.ws/book/96456/181#p1
    14في كتابه مسؤولية النساء في الأمر بالمعروف والنهي عن المنكر، ص ١٣٦.
    15আত-তারতিব আল-ইদারিয়া ১/২৮৬
    16كتاب الاختلاط بين الرجال والنساء 2/636 https://shamela.ws/book/26006/633
    17كتاب الرد المفحم page 155 https://shamela.ws/book/314/212
    Show More
    0 0 votes
    Article Rating
    Subscribe
    Notify of
    guest
    15 Comments
    Oldest
    Newest Most Voted
    Inline Feedbacks
    View all comments
    ABRAR
    ABRAR
    7 months ago

    sir hajider jonno beastiality keno allow kora hoyese? islamophobe der ekta mukhbhanga jobab din. doya kore kothata rakhben sir

    ABRAR
    ABRAR
    Reply to  Tahsin Arafat
    7 months ago

    sir, zina theke poida hoya konnar sathe naki nikah kora zayez? (tafsir al qurtubi 25;54) imam shafir opinion. pls sir, make a logical reply to the islamophobes.

    ABRAR
    ABRAR
    Reply to  Tahsin Arafat
    6 months ago

    sir, mariya al qubtiya ,hafsa (ra) and prophet PBUH niye jei golpota rochona kora hoyese ta ki sotti?

    Ashraful Nafiz
    Reply to  ABRAR
    6 months ago

    এই টপিকের বেশ ‍কিছু আর্টিক্যাল রয়েছে, আপনি কষ্ট করে সেগুলো পড়ে নিতে পারেন, আপনার সুবিদার্থে আমি কিছু সাজেন্ট করে লিংক দিয়ে দিচ্ছি –

    প্রথমে এগুলো পড়তে পারেন –

    1. https://response-to-anti-islam.com/show/%E0%A6%87%E0%A6%B8%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87-%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80%E0%A6%A4%E0%A6%A6%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A6%BF-%E0%A6%93-%E0%A6%AF%E0%A7%81%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%A7%E0%A6%AC%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%A5%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A7%8C%E0%A6%A8-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AA%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A7%88%E0%A6%A7%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%B0%E0%A7%82%E0%A6%AA-/173

    2. https://www.frommuslims.com/?p=79261

    তারপর এগুলো দেখতে পারেন – https://response-to-anti-islam.com/show/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%A4-%E0%A6%86%E0%A6%87%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%81%E0%A6%B9%E0%A7%81%E0%A6%AE—%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A6%BE-%E0%A6%95%E0%A6%BF%E0%A6%AC%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A6%BE(%E0%A6%B0%E0%A6%BE)-/2

    4. https://islamicauthors.com/article/236

    5. https://cutt.ly/uwUsErNv

    6. https://rijwanrafiqi.com/%E0%A6%A6%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%A5%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AA%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%95-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%B8/

    আশা করি এগুলো যথেষ্ট হবে, বাকি আপনি কষ্ট করে নিজের প্রশ্নগুলো প্রশ্ন-উত্তর সেকশনে করলে সবচেয়ে ভালো হয়। 
    . . 3.

    Last edited 6 months ago by Tahsin Arafat
    Fahim Khan
    7 months ago

    আলবানীর (রহঃ) মতে আরো মুখমণ্ডলের হিজাবও প্রমাণিত হয়।

    আপনি একটা প্রশ্নের উত্তরে বলেছিলেন আলবানীর মতে মুখমন্ডল হিজাবের অন্তর্ভুক্ত নয় কিন্তু সেটা করা সর্বোত্তম। নিচে জাকির নায়ক এর ভিডিওতেও আলবানীর বক্তব্য দেখা যায়- এছাড়াও আলবানীর বই আছে এনিয়ে।  

    পর্দা সম্পর্কে আলবানী রহ.

    https://www.youtube.com/watch?v=Hto14Dl_UVE

    https://abukhadeejah.com/the-niqab-for-the-muslim-woman-uncovering-her-face-and-hands-and-displaying-her-beautifications/

    দ্বীন ইসলামে কোনো সাবালক পুরুষের উপর নারীর কর্তৃত্ব নেই

    এটাকি দেশের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য এবং কাজীর পদের জন্য নাকি সকল ক্ষেত্রে যেমন: অফিস, ব্যবসা?

    Fahim Khan
    Reply to  Tahsin Arafat
    6 months ago

     আপনাদের পোস্ট এ তো ফরজ কথাটাই ফুটে উঠছে। পোস্ট এডিট করা দরকার না? 
    আর, নিচের লিংক টি পড়ে দেখেন তো-https://islamqa.org/shafii/seekersguidance-shafii/168845/do-the-hadiths-say-women-cant-be-leaders/

    As for other positions of authority, such as scholars and teachers, heads and executives, managers, representatives, and advisors, even at the highest levels, there is no shariah prohibition to this, and women have equal rights to such positions, as well as being entitled to command equal respect and rights, including salary.

    Fahim Khan
    Reply to  Tahsin Arafat
    6 months ago

    ইসলামওয়েব এ কথাগুলো তো কাজী বা রাষ্ট্রপ্রধান সম্পর্কে, যেগুলো আমি আগেও জানি ও মানি। কিন্তু আমি বলছি, এদুটো বাদে, নরমাল ক্ষেত্রে, যেমন সিইও, ম্যানেজার বা পরিচালক ইত্যাদি ক্ষেত্রে কি পারবে?
    এ প্রসঙ্গে দেখুন:

    As for other major positions held by women, there is no objection – God willing – such as: managing a hospital or a school. Omar, may God be pleased with him, appointed Al-Shifa’ bint Abdullah Al-Muharibah, may God be pleased with her, to the duties of the hisbah in Medina. This was mentioned by Al-Hafiz Ibn in Al-Shahr Al-Fadil in the biography of Al-Shifa. But this is on the condition that there is no seclusion or forbidden mixing.

    Source: https://www.islamweb.net/ar/fatwa/32047/
    islamqa ও এব্যাপারেই বলেছে। 
    দ্বিতীয়ত, শাফেঈ আলেম এর কথা কি ভুল? মানে, তার কথা ভুল না হলে islamqa তে পাবলিশ করা হলো যে?
    আর হিজাবি ফেমিনিস্ট বলতে কাদের বোঝাচ্ছেন?
    জাজাকাল্লাহ খাইরুন। 

    Last edited 6 months ago by Fahim Khan
    Back to top button