মুসলিম

আহমদ ইবনে আবদুল্লাহ হাবাশ হাসিব মারওয়াজি (রহঃ)

আহমদ ইবনে আবদুল্লাহ হাবাশ হাসিব মারওয়াজি (রহঃ) ইসলামী স্বর্ণযুগের একজন স্বর্ণ। মারওয়াজি (৭৬৬-৮৬৯ খ্রিস্টাব্দ)[1]তার সঠিক মৃত্যুর সাল জানা যায় নি। তবে ৮৬৯ সালের পর ইরাকে মৃত্যুবরণ করেন। তার ন্যূনতম বয়স হয়েছিলো একশ বছর। Charette, François (2007). “Ḥabash al‐Ḥāsib: Abū Jaʿfar Aḥmad ibn ʿAbd Allāh al‐Marwazī”. In … See Full Note একজন ইরানী জ্যোতির্বিজ্ঞানী, গণিতবিদ এবং ভূগোলবিদ।

খ্রিস্টানবিশ্ব যখন সেইন্ট পৌলের শিক্ষা অর্থাৎ ‘দুনিয়ার জ্ঞান আহাম্মকি’ মেনে চলছিলো[2]“কিন্তু জ্ঞানী লোক কোথায়? পণ্ডিত লোকই বা কোথায়? আর যার তর্ক করবার ক্ষমতা আছে এই যুগের সেই রকম লোকই বা কোথায়? এই জগতের জ্ঞান যে কেবল মূর্খতা তা কি ঈশ্বর … See Full Note তখন মুসলিম বিশ্ব ঈলমের সন্ধানে আল্লাহর নিদর্শনাবলী চষে বেড়াচ্ছিলো।

মারওয়াজি তৎকালীন সময় আব্বাসীয় খলিফা আল-মামুন এবং আল-মুতাসিম এর অধীনে কাজ করেছিলেন।

মারওয়াজি সর্বপ্রথম ত্রিকোণমিতির অনুপাতগুলোর ধারণা দেনঃ sine, cosine, tangent এবং cotangent. সেই সাথে বিভিন্ন কোণের মানের সাথে এগুলোর সর্বাধুনিক তালিকা তৈরি করেন।[3]এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা, ‘ত্রিকোণমিতি’ https://www.britannica.com/science/trigonometry[4]Jacques Sesiano, “Islamic mathematics”, p. 157, in Selin, Helaine; D’Ambrosio, Ubiratàn, eds. (2000), Mathematics Across Cultures: The History of Non-western Mathematics, Springer, ISBN 1-4020-0260-2

বাগদাদের আশ-শামসিয়্যা মানমন্দিরে গবেষণা করে তিনি চাঁদ, পৃথিবী, সূর্য সম্পর্কিত বিভিন্ন astronomical values নির্ণয় করেন। তার সেই ফলাফলগুলো এবং পাণ্ডুলিপিগুলো থেকে তথ্য নিয়ে Tzvi Langermann ১৯৮৫ সালে “The Book of Bodies and Distances of Habash al-Hāsīb” আর্টিকেলে সংকলিত করেন এবং তা Centaurus নামক জার্নালে প্রকাশিত হয়।[5]Langermann, Y. Tzvi (1985), “The Book of Bodies and Distances of Habash al-Hasib”, Centaurus, 28 (2): 108–128 https://doi.org/10.1111/j.1600-0498.1985.tb00831.x

ফ্রীতে পড়ুন এখানেঃ https://www.researchgate.net/publication/248821744_The_Book_of_Bodies_and_Distances_of_Habash_al-Hsb

তার কয়েকটি ফলাফল তুলে ধরছিঃ

পৃথিবী

পৃথিবীর পরিধি: ২০,১৬০ মাইল (৩২,৪৪৪ কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ৪০,০৭৫ কিমি

পৃথিবীর ব্যাস: ৬৪১৪.৫৪ মাইল (১০৩২৩.২০১ কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ১২,২৪২ কিমি গড়ে

পৃথিবীর ব্যাসার্ধ: ৩২০৭.২৭৫ মাইল (৫১৬১.৬০৯ কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ৬৩৫৭-৬৩৭৮ কিমি

চাঁদ

চাঁদের ব্যাস: ১৮৮৬.৮ মাইল (৩০৩৬.৫ কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ৩৪৭৪.৮ কিমি

চাঁদের পরিধি: ৫৯২৭.০২৫ মাইল (৯৫৩৮.৬২২) কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ১০৯২১ কিমি

চাঁদের নিকটতম দূরত্বের ব্যাসার্ধ: ২১৫,২০৮; ৯,৯ (ষাটমূলক) মাইল
চাঁদের নিকটতম দূরত্বের অর্ধ-পরিধি: ৬৭৬,৩৬৮; ২৮,৪৫,২৫,৪৩ (ষাটমূলক) মাইল
চাঁদের দূরতম দূরত্বের ব্যাসার্ধ: ২০৫,৮০০; ৮,৪৫ (ষাটমূলক) মাইল
চাঁদের দূরতম দূরত্বের ব্যাস: ৪১১,৬০০.২১৬ মাইল (৬৬২,৪০৬.৩৩৮ কিমি)
চাঁদের দূরতম দূরত্বের পরিধি: ১,২৯৩,৬০০.৯১৬ মাইল (২,০৮১,৮৪৮.৮৭৩ কিমি)

সূর্য

সূর্যের ব্যাস: ৩৫,২৮০; ১,৩০ মাইল (৫৬,৭৭৭.৬৯৬৬ কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ১.৩৯২৭ মিলিয়ন কিমি

সূর্যের পরিধি: ১১০,৮৮০; ৪,৪৩ মাইল (১৭৮,৪৪৪.১৮৯ কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ৪.৩৭৯ মিলিয়ন কিমি

সূর্যের কক্ষপথের ব্যাস: ৭,৭৬১,৬০৫.৫ মাইল (১২,৪৯১,০৯৩.২) কিমি)
→ আধুনিক হিসাব ১.৩৯ মিলিয়ন কিমি

সূর্যের কক্ষপথের পরিধি: ২৪,২৯২,৫৭১.৩৮ মাইল (৩৯,২৫৬,০৩৮) কিমি
→ আধুনিক হিসাব ১.৭ এক্সা কিলোমিটার

সূর্যের কক্ষপথ বরাবর এক ডিগ্রি: ৬৭,৭০০.০৫ মাইল (১০৮,৯৫২.৬৭) কিমি)
সূর্যের কক্ষপথ বরাবর এক মিনিট: ১১২৯.২৮৩ মাইল (১৮১৭.৪০৫) কিমি)

বাকি বিশ্ব বেশিদিন হয় নি জানতে পেরেছে সূর্যও ঘোরে, সূর্যও নিজের কক্ষপথে মিল্কিওয়ের চারপাশে ঘোরে। মারওয়াযি সেই কবেই সূর্যের কক্ষপথের হিসেব করে গেছেন।


মুসলিম/ইসলাম/কুরআন/হাদিসের বিরুদ্ধে অভিযোগ খণ্ডন

পৃথিবী কি সমতল?

নাস্তিকরা বিভিন্ন গোঁজামিলপূর্ণ ব্যাখ্যা দিয়ে অভিযোগ করে থাকে, আবার আমাদের মধ্যে কিছু ভাই আছে ফ্ল্যাট আর্থাররাও সমতল পৃথিবীতে বিশ্বাসী। খ্রিস্টান অজ্ঞতার ভাইরাসে আক্রান্ত তারা।
পৃথিবী সমতল হলে মারওয়াজি কীভাবে পৃথিবীর পরিধি, ব্যাসার্ধ নির্ণয় করলেন? তাও আবার আধুনিক হিসাবের কাছাকাছি!

[ফ্ল্যাট আর্থার মুসলিমরা একটা কুযুক্তি দিতে পারে যে পৃথিবী হচ্ছে ভাতের থালার মতো ‘গোল’, সেটার ব্যাসার্ধ/পরিধি নির্ণয় করা যেতেই পারে। – তাহলে তাদের দাবির স্বপক্ষে প্রমাণ দেখাক।] যাই হোক, বর্তমান হিসেব গোলীয় পৃথিবী বিবেচনা করে করা, মারওয়াযির হিসেবও তার কাছাকাছি। এর মানে কী নির্দেশ করে? মারওয়াযি গোলীয় পৃথিবীর হিসেবই করেছিলেন।

সূর্য কি পঙ্কিল জলাশয়ে অস্ত যায়/উষ্ণ ঝরণায় অস্ত যায়?

এই অভিযোগ অজ্ঞ মহল থেকে আসে। আফসোসজনকভাবে, আমাদের কিছু ফ্ল্যাট আর্থার ভাইবোনও বিশ্বাস করেন।
মারওয়াজির সূর্যসংক্রান্ত হিসেবগুলো আধুনিক হিসাবগুলো থেকে অনেকটা দূর হলেও, তার হিসেব থেকে দেখা যায় সূর্য পৃথিবীর থেকে অনেক বড়।
তাঁর হিসেব থেকেই দেখা যায় সূর্য পৃথিবীর থেকে অন্তত ২১৬ গুণ বড়।
তাহলে সূর্য পঙ্কিল জলাশয়ে অস্ত যায় – এটা সম্ভব না। কুরআনের আয়াতে সেই যুলকারনাইনের ব্যক্তির বাহ্যিক দৃষ্টির কথাই উল্লেখিত হয়েছে। “…সে দেখলো”-এরকম ভাবেই আয়াতে বলা আছে। ইবনে কাসীর (রহঃ) সেটিই উল্লেখ করেছেন, সূর্য তার কক্ষপথেই থাকে।

উষ্ণ ঝরণায় অস্তমিত হয় সংক্রান্ত হাদিসটি মুদাল্লিস, শায, গারীব হওয়ার কারণে মুহাদ্দিসীনদের মধ্যে গ্রহণীয় হয় নি। আমরা এসম্পর্কে আগেই লিখেছিলাম।[6]সূর্য কি উষ্ণ ঝরণায় অস্তমিত হয়? – হাদিসটির বিস্তারিত তাহক্বীক https://www.frommuslims.com/?p=1038

আল্লাহই ভালো জানেন।


মারওয়াজি (রহঃ) সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানুনঃ

    Footnotes

    Footnotes
    1তার সঠিক মৃত্যুর সাল জানা যায় নি। তবে ৮৬৯ সালের পর ইরাকে মৃত্যুবরণ করেন। তার ন্যূনতম বয়স হয়েছিলো একশ বছর। Charette, François (2007). “Ḥabash al‐Ḥāsib: Abū Jaʿfar Aḥmad ibn ʿAbd Allāh al‐Marwazī”. In Thomas Hockey; et al. (eds.). The Biographical Encyclopedia of Astronomers. New York: Springer. pp. 455–7. ISBN 978-0-387-31022-0 http://islamsci.mcgill.ca/RASI/BEA/Habash_al-Hasib_BEA.pdf
    2“কিন্তু জ্ঞানী লোক কোথায়? পণ্ডিত লোকই বা কোথায়? আর যার তর্ক করবার ক্ষমতা আছে এই যুগের সেই রকম লোকই বা কোথায়? এই জগতের জ্ঞান যে কেবল মূর্খতা তা কি ঈশ্বর দেখান নি?” – ১ করিন্থীয় ১:২০

    “কারণ ঈশ্বরের চোখে এই জগতের জ্ঞান কেবল মূর্খতা। পবিত্র শাস্ত্রে লেখা আছে, “ঈশ্বর জ্ঞানীদের তাদের ছল-চাতুরীতে ধরেন।” – ১ করিন্থীয় ৩:১৯

    3এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা, ‘ত্রিকোণমিতি’ https://www.britannica.com/science/trigonometry
    4Jacques Sesiano, “Islamic mathematics”, p. 157, in Selin, Helaine; D’Ambrosio, Ubiratàn, eds. (2000), Mathematics Across Cultures: The History of Non-western Mathematics, Springer, ISBN 1-4020-0260-2
    5Langermann, Y. Tzvi (1985), “The Book of Bodies and Distances of Habash al-Hasib”, Centaurus, 28 (2): 108–128 https://doi.org/10.1111/j.1600-0498.1985.tb00831.x

    ফ্রীতে পড়ুন এখানেঃ https://www.researchgate.net/publication/248821744_The_Book_of_Bodies_and_Distances_of_Habash_al-Hsb

    6সূর্য কি উষ্ণ ঝরণায় অস্তমিত হয়? – হাদিসটির বিস্তারিত তাহক্বীক https://www.frommuslims.com/?p=1038
    5 1 vote
    Article Rating
    Subscribe
    Notify of
    guest
    0 Comments
    Oldest
    Newest Most Voted
    Inline Feedbacks
    View all comments
    Back to top button