হিন্দুধর্ম

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী – শাস্ত্রীয় প্রমাণ

কৃষ্ণের বউ কয়টা? মুসলিমরা কি অপপ্রচার করে যী কৃষ্ণের স্ত্রী ষোল হাজার জন? আসুন হিন্দুদের এই অদ্ভুত দাবিগুলোর অসারতা দেখা যাক।

মহাভারত ক্রিটিক্যাল এডিশন (BORI Critical Edition)

আমরা বিভিন্নসময় মহাভারত থেকে রেফারেন্স দিলে কিছু অনলাইন অ্যাপোলোজিস্ট রেডি হয়ে যায় ক্রিটিক্যাল এডিশন নিয়ে। তাদের দাবি মতে Bhandarkar Oriental Research Institute (BORI) মহাভারতের প্রক্ষিপ্ত (প্রক্ষিপ্ত বলতে হিন্দুরা বোঝায় যা পরে ঢোকানো হয়েছে কিন্তু মূল কিতাবে ছিলো না) অংশগুলো বাদ দিয়ে একটি পরিষ্কার ভার্শন বের করেছে। যেহেতু ক্রিটিক্যাল এডিশনে সেই শ্লোকগুলো নেই, তার মানে সেগুলো প্রক্ষিপ্ত। সেজন্যেই আমরা ক্রিটিক্যাল এডিশন থেকেই ৭টা রেফারেন্স দিচ্ছি…

এক

ক্রিটিক্যাল এডিশনের দিকে চোখ বুলাই আগে, BORI আবার মহাভারতের হরিবংশ অংশকে প্রক্ষিপ্ত বলে উড়িয়ে দেয় নি,[1]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Harivamsha, chapter 88 https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n333/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

‘Having reached Dvaraka with the Vrishni army, the lord Rama followed the
prescribed rites and had Keshava and Rukmini married. With his beloved wife, he obtained supreme delight, like in earlier times, Rama with Sita and Poulami with Purandara. This beautiful one was Krishna’s eldest wife….

‘বৃষ্ণী সৈন্য নিয়ে দ্বারকে পৌঁছে ভগবান রাম তাকে অনুসরণ করলেন, নির্ধারিত আচার-অনুষ্ঠান এবং কেশব (কৃষ্ণের আরেক নাম) ও রুক্মিণীর বিয়ে হয়। তার প্রিয় স্ত্রীর সাথে, পূর্ববর্তী সময়ের রাম-সীতা এবং পৌলমি-পুরান্দরের মতো পরম আনন্দ লাভ করেছিলেন। এই সুন্দরী ছিলেন কৃষ্ণের জ্যেষ্ঠ স্ত্রী…

এখানে প্রথমে লেখা হলো রুক্মিণী হচ্ছে কৃষ্ণের বড়বউ। যার মানে দাঁড়ায় কৃষ্ণের আরো বউ আছে। তারপর বলা হলোঃ

Madhusudana had seven other fortunate wives.

মধুসূদনের (কৃষ্ণের) আরও সাতজন ভাগ্যবান স্ত্রী ছিল।

বলা হলো আরো ৭জন স্ত্রী আছে। তারপর তাদের নাম বলা হলোঃ

  1. কালিন্দী
  2. মিত্রবিন্দা
  3. নগ্নজিতের কন্যা সত্য
  4. রোহিণী, জাম্ববতের কন্যা
  5. মদ্ররাজের কন্যা/মাদ্রী
  6. সত্রাজিতের কন্যা সত্যভামা
  7. লক্ষ্মণা
  8. শৈব্যের কন্যা সুদত্তা

আহা! একটা বেশি হয়ে গেলো! মহাভারত-পুরাণ মিলিয়ে মোটমাট ১৫টার মতো ভিন্ন ভিন্ন নাম পাওয়া যায় যে এই ৮জন কে কে! অবশ্য কাল্পনিক কথাকাহিনিতে এসব পরষ্পরবিরোধিতা থাকা অস্বাভাবিক নয়। তারপর বলা হলোঃ

The infinitely valorous one also had another sixteen thousand wives. Hrishikesha married all of these at the same time. All of them possessed supreme garments and ornaments and deserved to enjoy pleasure. Through them, thousands of brave sons were born.

অসীম বীরের আরও ষোল হাজার স্ত্রী ছিল। হৃষীকেশ (কৃষ্ণের আরেক নাম) এই সব বিয়ে করলেন একই সময়ে। তাদের সকলকেই  দেওয়া হলো সর্বোচ্চ [মূল্যবান] পোশাক এবং অলঙ্কার এবং তারা আনন্দ উপভোগ করার যোগ্য ছিল। তাদের মাধ্যমে হাজার হাজার সাহসী ছেলের জন্ম হয়।

ভাবা যায়, হিন্দুদের কৃষ্ণ কীভাবে একসাথেই ১৬ হাজার বিয়ে করে নিলো! এসবের মাধ্যমে অনেকে আবার ফেইসবুকে কৃষ্ণকে ঈশ্বর প্রমাণ করার চেষ্টায় লিপ্তঃ

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

দুই

কিন্তু এই ষোল হাজার মেয়ে কৃষ্ণ কোথা থেকে জোগাড় করলো? মহাভারতের মিথ অনুযায়ী নরকাসুরের অন্তঃপুরে ষোল হাজার মেয়ে ছিলো। নরকাসুরের সাথে যুদ্ধ করে সেই মেয়েগুলোর দখল নেয় সে।[2]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Bhishma-Abhishechana Parva, chapter 818(155) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n2261/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

Hrishikesha obtained the supreme bow Sharnga after destroying the nooses of Mura, killing the energetic Mura, killing Naraka, the son of the earth, and obtaining sixteen thousand women and many jewels.

হৃষীকেশ (কৃষ্ণ) মুরার ফাঁস ধ্বংস করে, শক্তিমান মুরাকে হত্যা করে, পৃথিবীর পুত্র নরককে হত্যা করে এবং ষোল হাজার নারী ও বহু রত্ন প্রাপ্ত করে পরম ধনুক শার্ঙ্গ লাভ করেন।

তিন

কৃষ্ণের এই ষোল হাজার স্ত্রীর ব্যাপারে সে আগেই ভবিষ্যদ্বাণী পেয়েছিলো।[3]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Dana Dharma Parva, chapter 1697(16) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n4956/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

The goddess replied, ‘It shall be that way. You will possess the power of an immortal. I never speak anything that is false. You will have sixteen thousand wives…

দেবী উত্তর দিলেন, ‘এমনই হবে। আপনি একজন অমর ক্ষমতার অধিকারী হবেন। আমি কখনো মিথ্যা কথা বলি না। আপনার ষোল হাজার স্ত্রী হবে…

চার

কৃষ্ণের বড় বউ রুক্মিণীকে বলা হলো কৃষ্ণের ১৬ হাজারটা বউ হবে, তার মধ্যে রুক্মিণী হবে প্রধানঃ[4]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Dana Dharma Parva, chapter 1825(144) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5318/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

পাঁচ

মূল অংশে লেখা আছে – বাসুদেব অর্থাৎ কৃষ্ণের ষোল হাজার স্ত্রী ছিলো,[5]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Mousala Parva, chapter 1984(6) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5600/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

ছয়

একই কথা অন্য জায়গাতেও আছে,[6]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Mousala Parva, chapter 1986(8) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5604/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

সাত

বাসুদেব (কৃষ্ণের) ষোল হাজার স্ত্রীর সরস্বতী নদীতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা,[7]The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Svargarohana Parva, chapter 1995(5) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5627/mode/1up

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

এখন অনলাইন অ্যাপোলোজিস্টরা কি দাবি করবে তাদের ক্রিটিকাল এডিশনও প্রক্ষিপ্ত? নির্ভরযোগ্য নয়? অথচ এই ক্রিটিকাল এডিশনকে পুঁজি করেই রেফারেন্স সরাসরি অস্বীকার করতো যেগুলো ক্রিটিক্যাল এডিশনে বাদ দেওয়া হয়েছে। যদিও এসব কোনো গ্রন্থেরই গল্প-কাহিনি ছাড়া কোনো ভ্যাল্যু নেই।

মহাভারতের অন্যান্য সংস্করণ

রাজশেখর বসুর সারানুবাদ

এক

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণকৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

দারুক হস্তিনাপুরে গিয়ে দ্বারকার ঘটনাবলী জানালেন। ভোজ অন্ধক কুকুরু ও বৃষ্ণি বংশীয় বীরগণের নিধন শুনে পাণ্ডবগণ শোকাকুল হলেন। যদুকুল ধ্বংস হয়েছে এই আশঙ্কায় অর্জুন তাঁর মাতুল বসুদেবকে দেখবার জন্য তখনই যাত্রা করলেন। দ্বারকায় উপস্থিত হয়ে তিনি দেখলেন সেই নগরী পতিহীনা রমণীর ন্যায় শ্রীহীন হয়েছে। কৃষ্ণসখা অর্জুনকে দেখে কৃষ্ণের ষোল হাজার স্ত্রী উচ্চকণ্ঠে রোদন করতে লাগলেন। অর্জুনের চক্ষু বাষ্পকুল হল , তিনি সেই পতিপুত্রহীনা নারীদের দিকে চাইতে পারলেন না, সশব্দে রোদন করে ভূপতিত হলেন। রুক্মিণী সত্যভামা প্রভৃতি তাঁকে উঠিয়ে স্বর্ণময় পীঠে বসালেন এবং তাঁকে বেষ্টন করে বিলাপ করতে লাগলেন।

অনন্তর অর্জুন বসুদেবের কাছে এসে দেখলেন, তিনি পুত্রশোকে সন্তপ্ত হয়ে শুয়ে আছেন। বসুদেব বললেন, অর্জুন, আমার মৃত্যু নেই; যাঁরা শত শত নৃপতি ও দৈত্যগণকে জয় করেছিলেন, সেই পুত্রদের না দেখেও আমি জীবিত আছি। যে দুজন তোমার প্রিয় শিষ্য ছিল, যারা অতিরথ বলে খ্যাত এবং কৃষ্ণের প্রিয়তম ছিল, সেই প্রদ্যুম্ন ও সাত্যকিই বৃষ্ণিবংশনাশের মূল কারণ। অথবা আমি তাদের দোষ দিতে পারি না, ঋষিশাপেই আমাদের বংশ বিনষ্ট হয়েছে। তুমি ও নারদাদি মুনিগণ যাঁকে সনাতন বিষ্ণু বলে জানতে, আমার পুত্র সেই গোবিন্দ যদুবংশের এই বিনাশ উপেক্ষা করেছেন, তিনি জ্ঞাতিদের রক্ষা করতে ইচ্ছা করেননি। কৃষ্ণ আমাকে বলে গেছেন-“আমি আর অর্জুন একই, অর্জুন দ্বারকায় এসে স্ত্রী ও বালকগণের রক্ষার ভার নেবেন এবং মৃতজনের ঔর্ধ্বদেহিক ক্রিয়া করবেন; তিনি প্রস্থান করলেই দ্বারকা সমুদ্রজলে প্লাবিত হবে; আমি বলদেবের সঙ্গে কোনও নির্জন স্থানে যোগস্থ হয়ে অন্তকালের প্রতীক্ষা করব।

তারপর বসুদেব বললেন, পার্থ, আমি আহার ত্যাগ করেছি, জীবনধারণে আমার ইচ্ছা নেই। কৃষ্ণের বাক্য অনুসারে এই রাজ্য, নারীগণ ও ধনরত্ন তোমাকে সমর্পণ করছি। অর্জুন বললেন, মাতুল, কৃষ্ণ ও বান্ধববিহীন এই পৃথিবী আমি দেখতে ইচ্ছা করি না। আমার ভ্রাতৃগণ ও দ্রৌপদীর মনের অবস্থাও অনুরূপ, কারণ আমরা ছ জন একাত্মা। রাজা যুধিষ্ঠিরেরও প্রয়াণকাল উপস্থিত হয়েছে, অতএব আমি স্ত্রী বালক ও বৃদ্ধদের নিয়ে সত্বর ইন্দ্রপ্রস্থে যাব।

পরদিন প্রভাতকালে বসুদেব যোগস্থ হয়ে স্বর্গলাভ করলেন। দেবকী ভদ্রা মদিরা ও রোহিণী পতির চিতায় আরোহণ করে তার সহগামিনী হলেন। অর্জুন সকলের অন্তিম কার্য সম্পন্ন করলেন এবং বলরাম ও কৃষ্ণের দেহ অন্বেষণ করে এনে সৎকার করলেন। সপ্তম দিনে তিনি কৃষ্ণের ষোল হাজার পত্নী, পৌত্র বজ্র (১), এবং অসংখ্য নারী বালক ও বৃদ্ধদের নিয়ে যাত্রা করলেন। রথী গজারোহী ও অশ্বারোহী অনুচরগণ এবং ব্রাহ্মণক্ষত্রিয়াদি প্রজা তাঁদের সঙ্গে গেলেন। অর্জুন দ্বারকার যে যে স্থান অতিক্রম করতে লাগলেন তৎক্ষণাৎ সেই সেই স্থান সমুদ্রজলে প্লাবিত হল।[8]মহাভারত, মৌষল পর্ব, ৪। অর্জুনের দ্বারকায় গমণ ও প্রত্যাবর্তন, পৃ ৬৭৫-৬৭৬, রাজশেখর বসু https://archive.org/details/in.ernet.dli.2015.302513/page/n690/mode/1up

দুই

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

 তাঁর ষোল হাজার পত্নী কালক্রমে সরস্বতী নদীতে প্রাণত্যাগ ক’রে অপ্সরার রূপে নারায়ণের কাছে গেছেন।[9]মহাভারত, স্বর্গারোহণ পর্ব, ২। কুরপাণ্ডবাদির স্বর্গলাভ, পৃ ৬৮৫, রাজশেখর বসু https://archive.org/details/in.ernet.dli.2015.302513/page/n700/mode/1up

কাশীদাসী মহাভারত

এক

অর্জ্জুন বলেন দেব নাহি জান তুমি।
ষোড়শ সহস্র শত তোমার রমণী।।[10]কাশীদাসী মহাভারত, ১৫. অশ্বমেধ পর্ব, অধ্যায় ৪০ https://www.ebanglalibrary.com/34245/৪০-হস্তিনায়-অর্জ্জুনাদি/#:~:text=নাহি%20জান%20তুমি।-,ষোড়শ,-সহস্র%20শত%20তোমার

দুই

এই অষ্ট পাটরাণী শ্রীকৃষ্ণমোহিণী।
ষোড়শ সহস্র আর কৃষ্ণের রমণী॥[11]কাশীদাসী মহাভারত, ১৭. মুষল পর্ব, অধ্যায় ১ https://www.ebanglalibrary.com/34083/০১-যদুবালকদিগের-প্রতি-ব্/#:~:text=অষ্ট%20পাটরাণী%20শ্রীকৃষ্ণমোহিণী।-,ষোড়শ,-সহস্র%20আর%20কৃষ্ণের

তিন

ষোড়শ-সহস্র কন্যা দেবের কুমারী।
এককালে বিবাহ করিলেন মুরারি।।[12]কাশীদাসী মহাভারত, ১. আদি পর্ব, অধ্যায় ১২১ https://www.ebanglalibrary.com/34699/১২১-শ্রীকৃষ্ণের-সুরলোকে/#:~:text=মারিয়া%20পাইল%20কন্যাগণ।।-,ষোড়শ-সহস্র,-কন্যা%20দেবের%20কুমারী

কালীপ্রসন্ন সিংহ এবং অন্যান্য অনুবাদক

রাজশেখর বসু এবং কাশীদাসের অনুবাদের সাথে নাম্বারিং এ মিলে না সেই কারণে সেগুলো আলাদা করে উল্লেখ করলাম। এবার সাধারণ নাম্বারিং এর গুলো দেখাচ্ছিঃ

এক

কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রী - শাস্ত্রীয় প্রমাণ

বাসুদেবের যে ষোড়শসহস্র মহিষী ছিলেন, তাহারা অর্জুনকে সমাগত দেখিয়া হাহাকার করিতে আরম্ভ করিলেন।[13]মহাভারত, মৌসলপর্ব, অধ্যায় ৫, অনুবাদঃ কালীপ্রসন্ন সিংহ

দুই

“Uma said, ‘It shall be even so, O you that art possessed of prowess and puissance equal to that of a celestial. I never say what is untrue. You shalt have sixteen thousand wives

উমা বললেন, ‘এমনটাই হবে, হে তুমি মহাকাশের সমান পরাক্রম ও প্রতাপের অধিকারী। আমি কখনই মিথ্যা বলি না। তোমার ষোল হাজার স্ত্রী থাকবে।'[14]মহাভারত, অনুশাসন পর্ব, অধ্যায় ১৫, অনুবাদঃ কিশোরী মোহন গাঙ্গুলী https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/the-mahabharata-mohan/d/doc826340.html#:~:text=sixteen%20thousand%20wives

তিন

Baffling the nooses of Mura and slaying by his might that Asura, and vanquishing Naraka, the son of the Earth, Hrishikesa, while recovering the begemmed ear-rings (of Aditi), with sixteen thousand girls and various kinds of jewels and gems, obtained that excellent bow called Sarnga.

মুরাকে ফাঁদে ফেলে বধ করার পর এবং পৃথিবীর ছেলে নরককে হত্যা করা করার পর, হৃষীকেশ অদিতির কানের দুল উদ্ধার করার পর ষোল হাজার বালিকা এবং বিভিন্ন ধরণের রত্ন এবং সারঙ্গা নামের একটা ধনুক গ্রহণ করলো।[15]মহাভারত, উদ্যোগপর্ব, অধ্যায় ১৫৯, অনুবাদঃ কিশোরীমোহন গাঙ্গুলী https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/the-mahabharata-mohan/d/doc375096.html#:~:text=sixteen%20thousand%20girls

চার

You shalt become the foremost of all spouses, numbering sixteen thousand, O Kesava.

[রুক্মিণীকে বলা হচ্ছে] তুমি [কেশবের] ষোল হাজার সংখ্যক বউয়ের মধ্যে অগ্রগণ্য হও।[16]মহাভারত, অনুশাসন পর্ব, অধ্যায় ১৫৯, অনুবাদঃ কিশোরী মোহন গাঙ্গুলী https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/the-mahabharata-mohan/d/doc826484.html#:~:text=all%20spouses%2C%20numbering%20sixteen%20thousand

হরিবংশ

হরিবংশ পুরাণ হচ্ছে মহাভারতের খিল অংশ। যেখানে সংক্ষিপ্ত ভাবে মহাভারতের কাহিনি উল্লেখ করা হয়েছে। আমরা ইতোমধ্যেই ক্রিটিক্যাল এডিশনে এর উদাহরণ দেখেছি। আলোচনা বাড়াচ্ছি না। হরিবংশের সকল রেফারেন্সঃ

  1. হরিবংশ বিষ্ণু পর্ব, অধ্যায় ৬১
  2. হরিবংশ বিষ্ণু পর্ব, অধ্যায় ৬৪
  3. হরিবংশ বিষ্ণু পর্ব, অধ্যায় ৬৬
  4. হরিবংশ বিষ্ণু পর্ব, অধ্যায় ৭৬
  5. হরিবংশ বিষ্ণু পর্ব, অধ্যায় ৭৭
  6. হরিবংশ বিষ্ণু পর্ব, অধ্যায় ৮৯

গর্গ সংহিতা

গর্গ সংহিতার সকল রেফারেন্সঃ

  1. শ্লোক ৬/১৭/৩৪
  2. শ্লোক ৬/১৬/৮
  3. শ্লোক ৬/১৬/৩৪
  4. শ্লোক ৬/১৮/২৪
  5. শ্লোক ৬/১৭/১২-১৩
  6. শ্লোক ১/৫/৩২

পুরাণ

পুরাণে বিশালসংখ্যকবার এসেছে কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রীর কথা। আমরা আলোচনা কমানোর জন্য শুধু রেফারেন্সগুলো দিয়ে দিচ্ছি।

লিঙ্গপুরাণ

  1. উত্তরভাগ, অধ্যায় ৬৯ [ষোল হাজার একশ + ৮]

ব্রহ্মপুরাণ

  1. অধ্যায় ৯৫
  2. অধ্যায় ৯২
  3. অধ্যায় ৯৩

পদ্মপুরাণ

  1. উত্তরখণ্ড, অধ্যায় ৮৮
  2. পাতালখণ্ড, অধ্যায় ৭৬
  3. উত্তরখণ্ড, অধ্যায় ২৫২
  4. উত্তরখণ্ড, অধ্যায় ২০৬
  5. সৃষ্টিখণ্ড, অধ্যায় ৫৩
  6. উত্তরখণ্ড, অধ্যায় ২৪৯
  7. সৃষ্টিখণ্ড, অধ্যায় ২৩
  8. সৃষ্টিখণ্ড, অধ্যায় ১৩

শ্রীমদ্ভাগবত

GV Tagare এর ইংরেজি অনুবাদ থেকে রেফারেন্সঃ

  1. স্কন্দ ১০, অধ্যায় ৬১, শ্লোক ৪, ৭, ১৮-১৯
  2. স্কন্দ ১০, অধ্যায় ৬৯, শ্লোক ২, ৮, ৪৪
  3. স্কন্দ ১০, অধ্যায় ৯০, শ্লোক ৫, ২৯
  4. স্কন্দ ১, অধ্যায় ১৪, শ্লোক ৩৭
  5. স্কন্দ ১০, অধ্যায় ৮০, শ্লোক ১৭
  6. স্কন্দ ১০, অধ্যায় ৫৮, শ্লোক ৫৮
  7. স্কন্দ ১১, অধ্যায় ৬, শ্লোক ১৮
  8. স্কন্দ ১০, অধ্যায় ৫৯, শ্লোক ৩৩ ইত্যাদি।

ইস্কন থেকে প্রকাশিত প্রভুপাদের অনুবাদ এবং তাৎপর্য অংশ থেকে রেফারেন্সঃ

  1. শ্রীমদ্ভাগবত 5.1.6
  2. শ্রীমদ্ভাগবত 3.3.21
  3. শ্রীমদ্ভাগবত 3.2.12
  4. শ্রীমদ্ভাগবত 2.4.20
  5. শ্রীমদ্ভাগবত 2.10.10
  6. শ্রীমদ্ভাগবত 11.6.18
  7. শ্রীমদ্ভাগবত 10.90.1-7, 29
  8. শ্রীমদ্ভাগবত 10.86.26
  9. শ্রীমদ্ভাগবত 10.83.6-7, 43
  10. শ্রীমদ্ভাগবত 10.80.16-17
  11. শ্রীমদ্ভাগবত 10.69.1-8
  12. শ্রীমদ্ভাগবত 10.61.4
  13. শ্রীমদ্ভাগবত 10.59.33
  14. শ্রীমদ্ভাগবত 1.16.26-30
  15. শ্রীমদ্ভাগবত 1.14.31
  16. শ্রীমদ্ভাগবত 1.12.1
  17. শ্রীমদ্ভাগবত 1.11.30-31, 37
  18. শ্রীমদ্ভাগবত 1.10.29-30

বিষ্ণু পুরাণ

  1. অধ্যায় ৩১
  2. অধ্যায় ২৯
  3. অধ্যায় ২৮
  4. অধ্যায় ১৫
  5. অধ্যায় ১৩

স্কন্দপুরাণ

  1. (৭) প্রভাসখণ্ড, (১) প্রভাস ক্ষেত্র মাহাত্ম্য, অধ্যায় ১১৮, শ্লোক ৪-৬, ১৭
  2. (৭) প্রভাসখণ্ড, (৪) দ্বারকা মাহাত্ম্য, অধ্যায় ২, শ্লোক ২৯-৩১
  3. (৩) ব্রহ্মখণ্ড, (২) ধর্মারণ্য খণ্ড, অধ্যায় ১৪, শ্লোক ৩২-৩৬
  4. (৭) প্রভাসখণ্ড, (১) প্রভাস ক্ষেত্র মাহাত্ম্য, অধ্যায় ১০১, শ্লোক ৮-১০
  5. (২) বিষ্ণুখণ্ড, (৪) কার্তিক মাস মাহাত্ম্য, অধ্যায় ৪, শ্লোক ৩৪-৩৫

গরুড় পুরাণ

  1. পূর্বখণ্ড, অধ্যায় ১৪৪
  2. পূর্বখণ্ড, অধ্যায় ১৩৯

দেবী ভাগবত পুরাণ

  1. দেবী ভাগবত পুরাণ ৫/১/১২-৫৪
  2. দেবী ভাগবত পুরাণ ৪/২৫/৫৭

অগ্নি পুরাণ

  1. অধ্যায় ২৭৬, শ্লোক ৩-৫

হিন্দু স্কলারদের বক্তব্য

স্বামী প্রভুপাদ

ইস্কনের প্রতিষ্ঠাতা স্বামী প্রভুপাদ প্রচুর জায়গায় কৃষ্ণের ষোল হাজার বউয়ের কথা স্বীকার করেছেন।[17]যেমনঃ https://vanisource.org/wiki/660729_-_Lecture_BG_04.13-14_-_New_York?hl=sixteen|thousand

নারায়ণ গোস্বামী

নারায়ণ গোস্বামী তার গীতার অনুবাদের সাথে ব্যাখ্যায় ভাগবত পুরাণের উদ্ধৃতি দিয়ে এটা স্বীকার করেছেন।[18]https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/shrimad-bhagavad-gita/d/doc420060.html#:~:text=sixteen%20thousand%20women

তাছাড়াও প্রচুরসংখ্যক হিন্দুধর্মীয় গুরুদের বক্তব্য আনা যাবে যারা স্বীকার করেন কৃষ্ণের ১৬ হাজার স্ত্রীর ব্যাপারটা।

উপসংহার

আমরা এই আর্টিকেলে যতগুলো রেফারেন্স দিয়েছি সেগুলো পড়ে দেখলে দেখবেন কোথাও ১৬১০৮ কোথাও বা ১৬০০৮ টা বউয়ের কথা আছে কৃষ্ণের। বিভিন্ন পরষ্পরবিরোধিতাও আছে। তবে কোথাও যে ষোল হাজারের কম নেই সেটা স্পষ্ট। দিন শেষে এরাই বলবে মুসলিমদের চার বিয়ে জায়েয, মুসলিমদের চার বিয়ে জায়েয, মুসলিমদের চার বিয়ে জায়েয…

    Footnotes

    Footnotes
    1The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Harivamsha, chapter 88 https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n333/mode/1up
    2The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Bhishma-Abhishechana Parva, chapter 818(155) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n2261/mode/1up
    3The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Dana Dharma Parva, chapter 1697(16) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n4956/mode/1up
    4The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Dana Dharma Parva, chapter 1825(144) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5318/mode/1up
    5The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Mousala Parva, chapter 1984(6) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5600/mode/1up
    6The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Mousala Parva, chapter 1986(8) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5604/mode/1up
    7The Mahabharata BORI CE, Tr. Bibek Debroy, Svargarohana Parva, chapter 1995(5) https://archive.org/details/the-mahabharata-2/page/n5627/mode/1up
    8মহাভারত, মৌষল পর্ব, ৪। অর্জুনের দ্বারকায় গমণ ও প্রত্যাবর্তন, পৃ ৬৭৫-৬৭৬, রাজশেখর বসু https://archive.org/details/in.ernet.dli.2015.302513/page/n690/mode/1up
    9মহাভারত, স্বর্গারোহণ পর্ব, ২। কুরপাণ্ডবাদির স্বর্গলাভ, পৃ ৬৮৫, রাজশেখর বসু https://archive.org/details/in.ernet.dli.2015.302513/page/n700/mode/1up
    10কাশীদাসী মহাভারত, ১৫. অশ্বমেধ পর্ব, অধ্যায় ৪০ https://www.ebanglalibrary.com/34245/৪০-হস্তিনায়-অর্জ্জুনাদি/#:~:text=নাহি%20জান%20তুমি।-,ষোড়শ,-সহস্র%20শত%20তোমার
    11কাশীদাসী মহাভারত, ১৭. মুষল পর্ব, অধ্যায় ১ https://www.ebanglalibrary.com/34083/০১-যদুবালকদিগের-প্রতি-ব্/#:~:text=অষ্ট%20পাটরাণী%20শ্রীকৃষ্ণমোহিণী।-,ষোড়শ,-সহস্র%20আর%20কৃষ্ণের
    12কাশীদাসী মহাভারত, ১. আদি পর্ব, অধ্যায় ১২১ https://www.ebanglalibrary.com/34699/১২১-শ্রীকৃষ্ণের-সুরলোকে/#:~:text=মারিয়া%20পাইল%20কন্যাগণ।।-,ষোড়শ-সহস্র,-কন্যা%20দেবের%20কুমারী
    13মহাভারত, মৌসলপর্ব, অধ্যায় ৫, অনুবাদঃ কালীপ্রসন্ন সিংহ
    14মহাভারত, অনুশাসন পর্ব, অধ্যায় ১৫, অনুবাদঃ কিশোরী মোহন গাঙ্গুলী https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/the-mahabharata-mohan/d/doc826340.html#:~:text=sixteen%20thousand%20wives
    15মহাভারত, উদ্যোগপর্ব, অধ্যায় ১৫৯, অনুবাদঃ কিশোরীমোহন গাঙ্গুলী https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/the-mahabharata-mohan/d/doc375096.html#:~:text=sixteen%20thousand%20girls
    16মহাভারত, অনুশাসন পর্ব, অধ্যায় ১৫৯, অনুবাদঃ কিশোরী মোহন গাঙ্গুলী https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/the-mahabharata-mohan/d/doc826484.html#:~:text=all%20spouses%2C%20numbering%20sixteen%20thousand
    17যেমনঃ https://vanisource.org/wiki/660729_-_Lecture_BG_04.13-14_-_New_York?hl=sixteen|thousand
    18https://www.wisdomlib.org/hinduism/book/shrimad-bhagavad-gita/d/doc420060.html#:~:text=sixteen%20thousand%20women

    ইন্দো আর্য

    [ছদ্মনামে লিখি] Join: t.me/HinduDhormo
    5 1 vote
    Article Rating
    Subscribe
    Notify of
    guest
    2 Comments
    Oldest
    Newest Most Voted
    Inline Feedbacks
    View all comments
    sword
    sword
    11 months ago

    thanks. very informative.

    AllahIsOne
    AllahIsOne
    10 months ago

    Themo na chaliye jao……

    Back to top button